ইউক্রেনে আটকে পড়া ২৮ বাংলাদেশী নাবিককে রোমানিয়ায় সরিয়ে নেয়া হয়েছে : মোমেন


sujon প্রকাশিত: ৯:৫৯ অপরাহ্ণ ৫ মার্চ , ২০২২
ইউক্রেনে আটকে পড়া ২৮ বাংলাদেশী নাবিককে রোমানিয়ায় সরিয়ে নেয়া হয়েছে : মোমেন

বিশেষ প্রতিবেদক :  ইউক্রেন থেকে ‘বাংলার সমৃদ্ধি’র ২৮ নাবিককে রোমানিয়া নেয়া হয়েছে। দ্রুতই তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক স্মরণ সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান মন্ত্রী।

জাহাজে কারা হামলা করেছে সে বিষয়ে বাংলাদেশ কোনো তথ্য পেয়েছে কিনা জানতে চাইলে আব্দুল মোমেন বলেন, “কে জাহাজে বোমা মেরেছে আমরা জানি না। রাশিয়া দুঃখ প্রকাশ করেছে। আগুন আমাদের নাবিকরা নিভিয়েছে। খুব বড় ড্যামেজ হয়নি। যেহেতু নাবিকরা ভয় পাচ্ছেন সেহেতু আমরা তাদের উঠিয়ে নিয়ে আসছি।”

বাংলাদেশি নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়ায় ভারত সরকারের সহযোগিতার বিষয়ে এক উত্তরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ভারত সরকারের সঙ্গে ক্রমাগত আলোচনা করছি এবং তারা (ভারত) আমাদের যুদ্ধক্ষেত্র থেকে আমাদের লোকদের সরিয়ে নিতে সাহায্য করছে।

ইউক্রেনের একটি বন্দরে আটকে থাকা জাহাজটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার শিকার হয়ে বুধবার এক বাংলাদেশি নাবিক নিহত হয়।

হামলার পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পোল্যান্ডে বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সহায়তায় জাহাজ থেকে আটকে পড়া নাবিকদের ইউক্রেনের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা করে।

বাংলাদেশস্থ রাশিয়ান দূতাবাস ইউক্রেনে সশস্ত্র সংঘাতের মধ্যে একটি বাংলাদেশী জাহাজে একজন নাবিকের মৃত্যুতে দুঃখ প্রকাশ করেছে । এছাড়া এবং জাহাজটির নিরাপদ প্রস্থান নিশ্চিত করতে ঢাকাকে ‘সকল প্রচেষ্টা’ করার আশ্বাস দিয়েছে।

রাশিয়ান দূতাবাস এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘আমরা নিহতদের নিকটাআত্মীয় ও প্রিয়জনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাই।’

বিশদ বিবরণ না দিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে জাহাজটি নোঙর করার সময় এমভি বাংলার সমৃদ্ধির তৃতীয় প্রকৌশলী বাংলাদেশী নাবিক হাদিসুর রহমান নিহত হওয়ার ‘ঘটনার পারিপার্শ্বিকতা খতিয়ে দেখা হচ্ছে’।