ইউক্রেনে গুচ্ছবোমা ব্যবহার করছে রাশিয়া: ন্যাটো


meherin প্রকাশিত: ৭:৫৬ পূর্বাহ্ণ ৫ মার্চ , ২০২২
ইউক্রেনে গুচ্ছবোমা ব্যবহার করছে রাশিয়া: ন্যাটো

 আর্ন্তজাতিক ডেস্ক : ইউক্রেনে হামলা চালাতে রাশিয়া গুচ্ছবোমা ব্যবহার করছে বলে জানিয়েছেন পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ। স্থানীয় সময় শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য দেন তিনি।

জেনস স্টলটেনবার্গ বলেন, ‘আমরা (ইউক্রেনে) গুচ্ছবোমা ব্যবহার করতে দেখেছি। এ ছাড়া আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন হয়, এমন নানা ধরনের অস্ত্র ব্যবহারের তথ্য আমাদের নজরে এসেছে।’

ইউক্রেনের আকাশকে উড্ডয়ন নিষিদ্ধ এলাকা (নো-ফ্লাই জোন) ঘোষণা করা হবে না ও দেশটিতে ন্যাটোর কোনো সেনা পাঠানো হবে না বলে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন সামরিক জোটটির প্রধান। তবে ইউক্রেনকে অন্যান্য সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে চলমান হামলা বন্ধে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্টলটেনবার্গ।

ইউক্রেনে রুশ বিমানবাহিনীর তত্পরতা কম কেন

রাশিয়ার যুদ্ধবিমান এদিকে রুশ হামলা ঠেকাতে সামরিক সরঞ্জাম দিয়ে সহায়তা করা ন্যাটোর সদস্যদেশগুলোর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্র কুলেবা। তবে আরও সহায়তার জন্য আরজি জানিয়েছেন তিনি।

ফেসবুকে পোস্ট করা এক ভিডিওতে ন্যাটো দেশগুলোকে উদ্দেশ করে ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সহায়তা করুন। যদি না করেন, আমি ভয় পাচ্ছি, রাশিয়ার নিষ্ঠুর পাইলটদের ছোড়া বোমার আঘাতে যেসব বেসামরিক ইউক্রেনীয় নিহত হচ্ছেন, তাঁদের প্রাণহানি ও দুর্দশার দায়ভার আপনাদের নিতে হবে।’

ইউক্রেনে ‘নো-ফ্লাই জোন’ঘোষণায় ঝুঁকি কোথায়

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ হামলার পর ইউক্রেনের ক্ষতিগ্রস্ত বেসামরিক নাগরিকেরা নিরাপদ আশ্রয়ের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। শুক্রবার দেশটির রাজধানী কিয়েভে

এদিকে শুক্রবারই ইউরোপের বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র জাপোরিঝিয়া হামলা চালিয়ে দখল করে নিয়েছেন রুশ সেনারা। আল-জাজিরা জানায়, হামলার পর বিদ্যুৎকেন্দ্রটির ছয়টি চুল্লির একটিতে আগুন ধরে যায়। পরে অবশ্য আগুন নেভাতে সক্ষম হন ইউক্রেনীয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

জাপোরিঝিয়ায় পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে হামলার নিন্দা জানিয়েছেন বেশ কয়েকজন পশ্চিমা নেতা। তাঁদের আশঙ্কা, মস্কোর এমন কর্মকাণ্ড পুরো ইউরোপকে হুমকিতে ফেলবে।

খবর বিবিসির