ই-অরেঞ্জের সোহেল রানার বিরুদ্ধে মামলা অনুমোদন


sraboni প্রকাশিত: ৬:৫৬ অপরাহ্ণ ৪ জুলাই , ২০২২
ই-অরেঞ্জের সোহেল রানার বিরুদ্ধে মামলা অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক: গ্রাহকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ই-অরেঞ্জের পৃষ্ঠপোষক বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানার বিরদ্ধে মামলার অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অনুসন্ধান শেষে দুদক তার বিরুদ্ধে মামলার অনুমোদন দেন।

দুদকের প্রতিবেদনে বলা হয়, বনানী থানার তৎকালীন পরিদর্শক সোহেল রানার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে ই-কমার্স গ্রাহকদের টাকা আত্মসাৎ, বিদেশে পাচার ও দেশ ত্যাগের অভিযোগটি অনুসন্ধানের জন্য কমিশন কর্তৃক সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এ প্রেক্ষিতে অভিযোগটি অনুসন্ধানের জন্য উপ-পরিচালক মো. মোনায়েম হোসেনকে অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়।

অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা অভিযোগ অনুসন্ধান শেষে জানান, বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা নিজের পদ-পদবি আড়াল করে ই-অরেঞ্জ নামের এমএলএম কোম্পানি খুলে প্রতারণারমাধ্যমে সাধারণ গ্রাহকদের কাছ থেকে অধিক লোভের প্রলোভন দেখিয়ে তার নিজ নামে ও তার সংশ্লিষ্টদের নামে পরিচালিত ৬টি ব্যাংকের ৩১ হিসাবে ২৮ কোটি ৪৯ লাখ ৩৭ হাজার ৬৫০ টাকা ৪০ পয়সা জমা করেন।

পরে সেখান থেকে ২৮ কোটি ৪৬ লাখ ৭২ হাজার ৯১৩ টাকা ৮০ পয়সা উত্তোলন করেন। যা তার অবৈধ সম্পদ মর্মে প্রতীয়মান হওয়ায় তার বিরুদ্ধে মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন, ২০১২ এর ৪(২) ও ৪(৩) ধারা এবং দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪ এর ২৭(১) ধারা তৎসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় মামলা রুজুর সুপারিশ করে প্রতিবেদন দাখিল করেন অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা।এই কর্মকর্তার প্রতিবেদনের সুপারিশের আলোকে সোহেল রানার বিরুদ্ধে বর্ণিত ধারায় কমিশন কর্তৃক একটি মামলা রুজুর অনুমোদন প্রদান করা হয় বলে দুদকের প্রতিবেদনে বলা হয়।