কুমিল্লায় ইচ্ছা পূরণ হলো চলচ্চিত্রে নবাগত নায়িকা জাহারা মিতুর


meherin প্রকাশিত: ৭:৪১ পূর্বাহ্ণ ৫ মার্চ , ২০২২
কুমিল্লায় ইচ্ছা পূরণ হলো চলচ্চিত্রে নবাগত নায়িকা জাহারা মিতুর

 বিনোদন ডেস্ক : বহুদিনের শখ, মিশা সওদাগরের সঙ্গে এক ফ্রেমে অভিনয় করার। কিন্তু সেই সুযোগ হয়নি ঢাকার চলচ্চিত্রে নবাগত জাহারা মিতুর। এর আগে ‘আগুন, ও ‘কমান্ডো’ নামের দুটি সিনেমায় দুজন অভিনয় করলেও এক ফ্রেমে কাজ হয়নি। ছবি দুটির শুটিং আপাতত বন্ধ। এ জন্য আফসোস ছিল মিতুর। অবশেষে মিশা সওদাগরের সঙ্গে এক ফ্রেমে শুটিং করলেন মিতু। কুমিল্লার লোকেশনে শাহিন সুমনের ‘কুস্তিগির’ ছবিতে গত বুধবার থেকে শুটিং করছেন তাঁরা। একটি শখ পূরণ হলো এই অভিনেত্রীর।একই দৃশ্যে মিশা সওদাগরের সঙ্গে কাজ করার পর দুজনের কয়েকটি ছবিসহ মিতু তাঁর ফেসবুকে ভালোবাসার ইমোতে স্ট্যাটাসে লিখেছেন ‘অবশেষে তাহার সনে…’।

এরপর বি.দ্র. দিয়ে একাংশে লিখেছেন, ‘একসঙ্গে তিনটি ছবি চলমান। কিন্তু আমার অনেক বড় আফসোস ছিল, এখনো এক ফ্রেমে কাজ করা হলো না। পরিশেষে “কুস্তিগির” আমার সেই ইচ্ছা পূরণ করল। শাহিন সুমন ভাই আপনার অজান্তেই আপনার প্রতি কৃতজ্ঞতার ঝুলি বড় হচ্ছে।’ আরেক অংশে মজা করে মিশা সওদাগরকে এই নায়িকা লিখেছেন, ‘মিশা ভাই, সবাই নায়ক কেন পছন্দ করে জানি না; আমার কিন্তু আপনাকে পছন্দ হয়।’

অবশেষে কুমিল্লায় ইচ্ছা পূরণ হলো নায়িকার

মিতু বলেন, এর আগে মিশা সওদাগরের সঙ্গে সামনাসামনি দেখা হয়েছে, কথা হয়েছে, হাই–হ্যালো হয়েছে। কিন্তু সিনেমায় একসঙ্গে, এক ফ্রেমে কাজ করা হয়নি তাঁদের। এ ব্যাপারে মিতু বলেন, ‘“কুস্তিগির” ছবিতে কাজ করতে গিয়ে প্রায় ২০ দিন আগেই মিশা ভাইয়ের সঙ্গে দেখা হয়েছে। কিন্তু একসঙ্গে শুটিং না হওয়াতে তেমন কথা বা আড্ডা হতো না। তবে যতটুকুই দেখা হতো, কথা হতো, দেখতাম মুখে হাসি লেগেই আছে। তিনি হাসিখুশিতে ভরা একজন মানুষ। আমাকে আদর করে “মিতু ভাইয়া” বলে সম্বোধন করেন। বয়সের কত ছোট আমি, আমাকে সম্মান করে কথা বলেন। এত আন্তরিক, না মিশলে বুঝতেই পারতাম না।’

মিতু জানান, অনেকে মনে করেন বাস্তব জীবনটাও পর্দার মতোই মিশা সওদাগরের। কিন্তু তাঁর বাস্তব জীবন পুরো উল্টো। বাস্তব জীবনে দারুণ অমায়িক একজন মানুষ ঢাকাই ছবির এই খলনায়ক।

অবশেষে কুমিল্লায় ইচ্ছা পূরণ হলো নায়িকার

মিতু আরও বলেন, ‘বর্তমানে চলচ্চিত্রের আনপ্যারালাল খলনায়ক তিনি। শুটিংয়ের সময় সহশিল্পীর সঙ্গে তাঁর ব্যবহার দেখে মুগ্ধ হয়েছি। কাজের ফাঁকে সেটে প্রোডাকশনের ছেলেদের তাগিদ দেন “এই, মিতুকে চেয়ার দাও, বসতে দাও।’’ শুধু আমার ক্ষেত্রেই নয়, সহশিল্পী সবারই তিনি এভাবে খোঁজ নেন। চিন্তা করেন, এত বড় একজন মানুষ, এত আন্তরিকতা দিয়ে সবার দিকে নজর রাখেন। আমি মনে করি, একজন সত্যিকারের অভিনেতার গুণ এটি। নিজে বড় হতে হলে মনটা সহজ–সরল রাখতে হয়, ভালোবাসা ছড়াতে হয়।’

এদিকে জাহারা মিতুর স্ট্যাটাসের নিচে মন্তব্যের ঘরে মিশা সওদাগর লিখেছেন ‘গ্রেট’। উত্তরে মিতু ভালোবাসার ইমো দিয়েছেন। জাহারা মিতুর সঙ্গে কাজ করে ভালো লাগার কথা জানালেন মিশা সওদাগর। তিনি বলেন, ‘“আগুন” ও “কমান্ডো” নামের আরও দুটি ছবিতে আমরা দুজন আছি। ওই দুটি ছবির কাজ আগেই শুরু হয়েছে, কিন্তু আমাদের এক ফ্রেমে কাজ হয়নি। আপাতত শুটিং বন্ধ আছে ছবি দুটির। “কুস্তিগির” ছবিতে কাজ করতে গিয়ে দেখলাম কাজের ব্যাপারে খুবই সিরিয়াস মিতু। প্রস্তুতি নিয়েই তিনি সেটে আসেন। সিনেমায় নতুন হিসেবে তাঁর কাজ আমরা ভালো লেগেছে।’

মিশা আরও বলেন, ‘ভালো কাজের জন্য প্রতিটি নতুন শিল্পীরই মিতুর মতো প্রস্তুতি নিয়ে এসে কাজ করা উচিত। এভাবে ধরে রাখতে পারলে মিতুও একদিন ঢাকার চলচ্চিত্রে অনেক ওপরে থাকবেন।’ ‘কুস্তিগির’ ছবিতে জাহারা মিতুর বিপরীতে অভিনয় করছেন বাপ্পী চৌধুরী।