ক্রয়কৃত জায়গা দখল করে রাতের আঁধারে ঘর তৈরির অভিযোগ


sujon প্রকাশিত: ৯:৪০ অপরাহ্ণ ৯ মার্চ , ২০২২
ক্রয়কৃত জায়গা দখল করে রাতের আঁধারে ঘর তৈরির অভিযোগ

রুকন উদ্দীন, নেত্রকোণা: নেত্রকোণার কেন্দুয়া পৌরশহরের সাউদপাড়া মহল্লার বাসিন্দা চয়ন মিয়া নামের এক ব্যক্তির ক্রয়কৃত জায়গা দখল করে রাতের আঁধারে ঘর তৈরি করার অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় একই এলাকার বাসিন্দা হারেছ মিয়ার বিরুদ্ধে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন জমির মালিক চয়ন মিয়া।

তিনি বলেন, ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে আমি একই এলাকার আবুচানের কাছ থেকে সাফকাওলামূলে ৬ শতাংশ জমি কিনেছি। কিন্তু জমি রেজিস্ট্রি করে দেওয়ার পর সম্প্রতি আবুচানের ভাই হারেছ মিয়া রাতের আঁধারে আমার খরিদকৃত জায়গায় ঘর তৈরি করে।

তিনি আরও বলেন, আমি বিষয়টি জানার পর হারেছ মিয়াকে আমার জায়গা থেকে ঘর সরিয়ে নিতে বলি এবং ঘরটি সরিয়ে নিতে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়েও হারেছ মিয়াকে বলা হয়। কিন্তু তিনি কারো কথাই শুনেননি। এ অবস্থায় গত সোমবার (৭ মার্চ) রাতে আমরা ঘর উচ্ছেদের চেষ্টা চালালে তাতে বাঁধা দেন হারেছ মিয়াসহ তার লোকজন।

এদিকে হারেছ মিয়া তার ঘর সরিয়ে না নিয়ে উল্টো জমির মালিকসহ তার লোকজনের বিরুদ্ধে থানায় ভাংচুরের মৌখিক অভিযোগ করেছেন বলেও জানান চয়ন মিয়া।

এ বিষয়ে কথা বলতে হারেছ মিয়ার সাথে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে হারেছ মিয়ার ছেলে সাইদুল ইসলাম জানান, ওয়ারিশান সূত্রে আমরা এ জায়গায় ঘর তৈরি করেছি। আমার চাচা আবুচান মিয়ার নামজারি (খারিজ) বাতিলের জন্য আদালতে মামলাও করেছি। কিন্তু এরই মধ্যে আমার চাচা আবুচান ৬ শতাংশ জায়গা চয়ন মিয়ার কাছে বিক্রি করে দেয়।

সাইদুল আরও বলেন, গত সোমবার (৭ মার্চ) রাতে চয়ন মিয়া ও তার লোকজন আমাদের ঘর’টি ভাংচুর করেছে। ঘটনাটি আমরা পুলিশকেও জানিয়েছি।

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহ নেওয়াজের সাথে এ বিষয়ে কথা হলে তিনি জানান, মৌখিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।