খাদ্য সংকটে মারাত্মকভাবে বাড়বে বাস্তুচ্যুতের সংখ্যা


sraboni প্রকাশিত: ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ ১৬ জুন , ২০২২
খাদ্য সংকটে মারাত্মকভাবে বাড়বে বাস্তুচ্যুতের সংখ্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনা মহামারির পর রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে চলমান যুদ্ধের কারণে বিশ্বজুড়ে খাদ্য ঘাটতি মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার প্রধান জানিয়েছে, এতে দরিদ্র দেশগুলোতে মানুষ তাদের ঘর-বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে বিশ্বব্যাপী বাস্তুচ্যুতের সংখ্যা রেকর্ড সংখ্যক বাড়বে।

সংস্থাটির প্রকাশিত প্রতিবেদনে দেখা গেছে, ২০২১ সালের শেষের দিকে নিপীড়ন, সংঘাত, নির্যাতন ও সহিংসতার ফলে বিশ্বব্যাপী প্রায় আট কোটি ৯০ লাখের বেশি মানুষ জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুতের শিকার হয়। এরপর ইউক্রেন যুদ্ধে লাখ লাখ মানুষ বাড়ি-ঘর ছেড়ে বিদেশে পালিয়েছে। দেশটিতে বেড়েছে অভ্যন্তরীণ বাস্তুচ্যুতের সংখ্যাও। এ অবস্থায় তীব্র খাদ্য সংকটও বাস্তুচ্যুতের সংখ্যাকে ত্বরান্বিত করছে।সংস্থাটির প্রধান ফিলিপপো গ্রানডি বলেন, যুদ্ধ, মানবাধিকার ও জলবায়ু ইস্যুর সঙ্গে যদি খাবার সংকট যোগ হয় তাহলে গৃহহীনদের সংখ্যা বাড়তেই থাকবে।

তিনি বলেন, স্পষ্টভাবে বলা যায় যদি সংকট শিগগির সমাধান না হয় তাহলে পরিস্থিতি হবে ভয়াবহ। খাদ্য মূল্য বাড়ায় ও সহিংসতায় আফ্রিকার বেশ কিছু এলাকা থেকে এরই মধ্যে মানুষজন পালিয়ে যেতে শুরু করেছে।প্রতিবেদনে বলা হয়, গত দশকের প্রত্যেক বছরই বাস্তুচ্যুতের সংখ্যা বেড়েছে। ২০১২ সালে বাস্তুচ্যুতের সংখ্যা ছিল প্রায় চার কোটি ৩০ লাখ, যা বেড়ে এখন দ্বিগুণের বেশি হয়েছে।