জাবিতে আন্তঃবিভাগ ক্রিকেট খেলায় ইতিহাস বিভাগের অনিয়মের অভিযোগ


sraboni প্রকাশিত: ৮:১৫ অপরাহ্ণ ১৫ জুন , ২০২২
জাবিতে আন্তঃবিভাগ ক্রিকেট খেলায় ইতিহাস বিভাগের অনিয়মের অভিযোগ

জাবি প্রতিনিধি:জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) আন্তঃবিভাগ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে কোয়ার্টার ফাইনালে ইতিহাস বিভাগের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ করেছে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগ।

বুধবার (১৫ জুন) বিকেলে ভুগোল ও পরিবেশ বিভাগের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়া পরিচালনা কমিটির সভাপতি বরারব লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। এ সময় অভিযোগপত্রটি গ্রহণ করেন শারীরিক শিক্ষা অফিসের উপ-পরিচালক দেবব্রত পাল। তিনি জানান, অভিযোগপত্রটি খেলা পরিচালনা কমিটির সভাপতিকে অবহিত করা হয়েছে। কমিটির সিদ্ধান্তানুসারে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

লিখিত অভিযোগ বলা হয়, ১৫ জুন অনুষ্ঠিত ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগ বনাম ইতিহাস বিভাগের মধ্যবর্তী কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচে ইতিহাস বিভাগের ক্রিকেট দলের ১৭ নং জার্সিধারী ৬ নং খেলায়াড় ইশতিয়াক হোসেন অন্তরকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। যিনি ২০১৯-২০ সেশেনের (৪৫তম ব্যাচ) স্নাতকোত্তর সম্পন্নকারী একজন শিক্ষার্থী। অর্থাৎ তিনি ইতিহাস বিভাগের নিয়মিত শিক্ষার্থী নন, যা খেলার নিয়মের পরিপন্থী।

খেলার বিধিমালার ৫নং এ স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে যে, একজন মাস্টার্সের শিক্ষার্থীর মাস্টার্সের মৌখিক পরীক্ষা/রিপোর্ট বা থিসিস জমা দেয়া যেদিন শেষ হবে তার পরের দিন হতে সে বিভাগের কোন খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না। ছাত্রত্ব নেই এমন কোন শিক্ষার্থী কোন বিভাগের পক্ষে অংশগ্রহণ করলে খেলার ফলাফল সংশ্লিষ্ট বিভাগের বিপক্ষে যাবে।অভিযোগের বিষয়ে ইশতিয়াক হোসেনের সাথে মুঠোফোনে কল দেয়া হলে তিনি রিসিভ করেনি।

এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, পরীক্ষার রুটিন অনুসারে গত ৭ এপ্রিল ইতিহাস বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের মৌখিক পরীক্ষাসহ মাস্টার্সের সকল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। ইশতিয়াক হোসেন অন্তর পরীক্ষায় কোন বিষয়ে খাতা কাটেনি। বিভাগের একই ব্যাচের একাধিক শিক্ষার্থী এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযোগপত্র পেয়েছেন কিনা জিজ্ঞেস করলে পরিচালনা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ টি এম আতিকুর রহমান জানান, অভিযোগ সম্পর্কে অবহিত হয়েছি। তবে অভিযোগ পত্র হাতে পাইনি। যদি অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে খেলার পরিচালনা কমিটি বিধি মোতাবেক সিদ্ধান্ত নিবে।প্রসঙ্গত, খেলায় ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগ ১০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৯৫ রান অর্জন করে। ৯৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ইতিহাস বিভাগ ৩ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটে জয় লাভ করে।