ঝিনাইদহে হঠাৎ শিলাবৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতি কৃষকের


sujon প্রকাশিত: ৮:৪৮ অপরাহ্ণ ২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২২
ঝিনাইদহে হঠাৎ শিলাবৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতি কৃষকের

মাসুম শাহরিয়ার, ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহে রোববার বিকেলে জেলার বিভিন্ন স্থানে শিলাবৃষ্টি  সংঘটিত হওয়ার ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে কৃষক। প্রতিবছর জেলায় এসময় কলা, পান, পেয়াজ, ধান, শসা, তামাকসহ নান ফসলের আবাদ হয়।

গত শুক্রবার অসময়ের ঝড়ে ও শিলাবৃষ্টি তে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন একাধিক কৃষক। দিশেহারা হয়ে পড়েছে প্রান্তিক কৃষকেরা।

কৃষকেরা জানিয়েছেন, শীতের শেষ মৌসুমে এমন শিলা বৃষ্টি কখনো দেখেননি। রবিবার  বিকেলে  জেলা সদর সহ জেলার বিভিন্ন স্থানে শিলাবৃষ্টি হয়েছে যার ফলে কৃষকের ক্ষেতের কলা,ধান,পান, আলু, পেঁয়াজ, রসুন, গম, ভুট্টা, আম, লিচু গাছের মুকুলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

এই বিষয়ে কৃষক আমিনুল ইসলাম জানান, গত শুক্রবার অসময়ের ঝড়ে কলা গাছ সব ভেঙ্গে গেছে আজ আবার শিলাবৃষ্টি এসময়ে এমন ঝড়, শিলাবৃষ্টি জীবনে আর কখনও দেখি নাই। কলা,আলু, পেঁয়াজ, তামাকের বেশি ক্ষতি হয়েছে। এই শিলাবৃষ্টিতে  জমির তামাক ও আলু ক্ষেত প্রায় নষ্ট হয়ে গেছে। ক্ষেতে যা ব্যয় হয়েছে সে খরচও এখন উঠবে না।

তিনি আরও বলেন, ধার, দেনা করে অনেকে ফসল আবাদ শুরু করেছে। অনেক কৃষক  ঝড়ের পর আবার এ শিলাবৃষ্টি এসব ঘটনায় মাথায় হাত। এতে যদি প্রশাসন আমাদের কিছু সহায়তা প্রদান করতো তাহলে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব হতো।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. আজগর আলী বলেন, ক্ষণস্থায়ী শিলা বৃষ্টিতে ফসলের অনেক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বিশেষ করে আলু, পেয়াজ, কলা ও পান বেশি পরিমাণে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। আমের মুকুলের অনেক ক্ষতি হতে পারে।

কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা আগামীকাল (সোমবার) জানা যাবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কৃষক যদি সঠিকভাবে পরিচর্যা করতে পারেন, তাহলে ফসলের ক্ষতির সম্ভবনা অনেকটা কম হবে।