‘ঢাকা ডার্বি’তে মোহামেডানকে হারাল আবাহনী


resma প্রকাশিত: ৫:৪০ পূর্বাহ্ণ ২৪ ফেব্রুয়ারি , ২০২২
‘ঢাকা ডার্বি’তে মোহামেডানকে হারাল আবাহনী

স্পোর্টস ডেস্ক: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলে বুধবার সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হাইভোল্টেজ ম্যাচ, যাকে বলা হয় ‘ঢাকা ডার্বি’। হ্যাঁ, ঠিক ধরেছেন দুই ঐতিহ্যবাহী ও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ঢাকা আবাহনী বনাম মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের কথাই বলা হচ্ছে। তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও উপভোগ্য এই ম্যাচে জয়ের হাসি হেসেছে আবাহনীই। তারা ১-০ গোলে হারায় মোহামেডানকে। জয়ী দলের সোহেল রানা খেলার ২৮ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন। এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের এক নম্বরে উঠে এল ১৭ বারের লীগ চ্যাম্পিয়ন ও ‘দ্য স্কাই ব্লু ব্রিগেড’ খ্যত আবাহনী। ৫ ম্যাচে এটা তাদের চতুর্থ জয়। ১ ড্রতে সংগ্রহ ১৩ পয়েন্ট। পক্ষান্তরে সমান ম্যাচে এটা ১৯ বারের চ্যাম্পিয়ন ও ‘ব্ল্যাক এ্যান্ড হোয়াইট’ খ্যাত মোহামেডানের এটা প্রথম হার। ২ জয় ও ২ ড্রতে ৮ পয়েন্ট নিয়ে তাদের অবস্থান পঞ্চম। পেশাদার যুগে প্রবেশ করার পর এখন পর্যন্ত দুই দল ২৭ বার মুখোমুখি হলো। আবাহনী জিতেছে ১২টিতে। মোহামেডানের জয় ৫ ম্যাচে। বাকি ১০ ম্যাচ ড্র হয়। তবে শেষ দুটি গত মৌসুমে লীগে ড্র হয়েছে। প্রথম লেগে ২-২ অমীমাংসিত থাকার পর ফিরতি দেখায় শেষ হয় ১-১ ড্রয়ে।

রাসেলকে হারাল জামাল ॥ তিনবারের লীগ চ্যাম্পিয়ন তারা। তবে সর্বশেষ শিরোপা জিতেছে অনেকদিন আগে, সময়ের হিসেবে বছর আটেক। এই সময়ের বন্ধ্যত্ব ঘুঁচিয়ে এবার আবারও লীগ শিরোপা জিততে মরিয়া শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব। সেই লক্ষ্যে এবার তারা শুরুটা বেশ ভালই করেছিল প্রথম দুই ম্যাচে জিতে। কিন্তু পরের দুই ম্যাচে ড্র করে পয়েন্ট নষ্ট করে। বুধবার মুন্সীগঞ্জে বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লে. মতিউর রহমান স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে জিতে আবারও জয়ের ধারায় ফিরেছে ‘বেঙ্গল ইয়োলোস’ খ্যাত শেখ জামাল। তারা ১-০ গোলে হারায় একবারের লীগ চ্যাম্পিয়ন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে।

এই জয়ে ৫ ম্যাচে শেখ জামালের সংগ্রহ ১১ পয়েন্ট। তারা উঠে এসেছে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় দুইয়ে। পক্ষান্তরে সমান ম্যচে দ্বিতীয় হারে ৫ পয়েন্ট নিয়ে ‘বেঙ্গল ব্লুজ’ খ্যাত রাসেল আছে পয়েন্ট টেবিলের সাতে।

প্রথম দুই ম্যাচে জয় পেলেও পরের দুই ম্যাচে পূর্ণ তিন পয়েন্ট লাভ করতে পারেনি শেখ জামাল। মুন্সীগঞ্জে নিজেদের হোম ম্যাচে তারা প্রতিপক্ষ হিসেবে পায় শেখ রাসেলকে। তবে নিজেদের মাঠেও জামালকে গোল পেতে অনেকটা সময় অপেক্ষা করতে হয়েছে। ঝরাতে হয়েছে বিস্তর ঘাম। ম্যাচের ৩১ মিনিট পর্যন্ত তাদের আটকে রাখে শেখ রাসেল। তবে ৩২ মিনিটে গোলমুখ খুলতে সক্ষম হয় শেখ জামাল। উজবেকিস্তানের ফরোয়ার্ড ওটাবেকের পাসে বল পেয়ে গোল করে দলকে লিড এনে দেন জামালের নাইজেরিয়ান মিডফিল্ডার চিনেদু ম্যাথিউ (১-০)।

দ্বিতীয়ার্ধেও বেশ কিছু গোলের সুযোগ পেলেও শেষ পর্যন্ত আর ব্যবধানটা বাড়াতে পারেনি জামাল। অন্যদিকে শেখ রাসেলও ম্যাচের একমাত্র গোলটি শোধ করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত জামালের কাছে হেরেই মাঠ ত্যাগ করে রাসেল।‘ঢাকা ডার্বি’তে মোহামেডানকে হারাল আবাহনী

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলে বুধবার সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হাইভোল্টেজ ম্যাচ, যাকে বলা হয় ‘ঢাকা ডার্বি’। হ্যাঁ, ঠিক ধরেছেন দুই ঐতিহ্যবাহী ও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ঢাকা আবাহনী বনাম মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের কথাই বলা হচ্ছে। তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও উপভোগ্য এই ম্যাচে জয়ের হাসি হেসেছে আবাহনীই। তারা ১-০ গোলে হারায় মোহামেডানকে। জয়ী দলের সোহেল রানা খেলার ২৮ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন। এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের এক নম্বরে উঠে এল ১৭ বারের লীগ চ্যাম্পিয়ন ও ‘দ্য স্কাই ব্লু ব্রিগেড’ খ্যত আবাহনী। ৫ ম্যাচে এটা তাদের চতুর্থ জয়। ১ ড্রতে সংগ্রহ ১৩ পয়েন্ট। পক্ষান্তরে সমান ম্যাচে এটা ১৯ বারের চ্যাম্পিয়ন ও ‘ব্ল্যাক এ্যান্ড হোয়াইট’ খ্যাত মোহামেডানের

এটা প্রথম হার। ২ জয় ও ২ ড্রতে ৮ পয়েন্ট নিয়ে তাদের অবস্থান পঞ্চম। পেশাদার যুগে প্রবেশ করার পর এখন পর্যন্ত দুই দল ২৭ বার মুখোমুখি হলো। আবাহনী জিতেছে ১২টিতে। মোহামেডানের জয় ৫ ম্যাচে। বাকি ১০ ম্যাচ ড্র হয়। তবে শেষ দুটি গত মৌসুমে লীগে ড্র হয়েছে। প্রথম লেগে ২-২ অমীমাংসিত থাকার পর ফিরতি দেখায় শেষ হয় ১-১ ড্রয়ে।

রাসেলকে হারাল জামাল ॥ তিনবারের লীগ চ্যাম্পিয়ন তারা। তবে সর্বশেষ শিরোপা জিতেছে অনেকদিন আগে, সময়ের হিসেবে বছর আটেক। এই সময়ের বন্ধ্যত্ব ঘুঁচিয়ে এবার আবারও লীগ শিরোপা জিততে মরিয়া শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব। সেই লক্ষ্যে এবার তারা শুরুটা বেশ ভালই করেছিল প্রথম দুই ম্যাচে জিতে। কিন্তু পরের দুই ম্যাচে ড্র করে পয়েন্ট নষ্ট করে। বুধবার মুন্সীগঞ্জে বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লে. মতিউর রহমান স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে জিতে আবারও জয়ের ধারায় ফিরেছে ‘বেঙ্গল ইয়োলোস’ খ্যাত শেখ জামাল। তারা ১-০ গোলে হারায় একবারের লীগ চ্যাম্পিয়ন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে।

এই জয়ে ৫ ম্যাচে শেখ জামালের সংগ্রহ ১১ পয়েন্ট। তারা উঠে এসেছে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় দুইয়ে। পক্ষান্তরে সমান ম্যচে দ্বিতীয় হারে ৫ পয়েন্ট নিয়ে ‘বেঙ্গল ব্লুজ’ খ্যাত রাসেল আছে পয়েন্ট টেবিলের সাতে।

প্রথম দুই ম্যাচে জয় পেলেও পরের দুই ম্যাচে পূর্ণ তিন পয়েন্ট লাভ করতে পারেনি শেখ জামাল। মুন্সীগঞ্জে নিজেদের হোম ম্যাচে তারা প্রতিপক্ষ হিসেবে পায় শেখ রাসেলকে। তবে নিজেদের মাঠেও জামালকে গোল পেতে অনেকটা সময় অপেক্ষা করতে হয়েছে। ঝরাতে হয়েছে বিস্তর ঘাম। ম্যাচের ৩১ মিনিট পর্যন্ত তাদের আটকে রাখে শেখ রাসেল। তবে ৩২ মিনিটে গোলমুখ খুলতে সক্ষম হয় শেখ জামাল। উজবেকিস্তানের ফরোয়ার্ড ওটাবেকের পাসে বল পেয়ে গোল করে দলকে লিড এনে দেন জামালের নাইজেরিয়ান মিডফিল্ডার চিনেদু ম্যাথিউ (১-০)।

দ্বিতীয়ার্ধেও বেশ কিছু গোলের সুযোগ পেলেও শেষ পর্যন্ত আর ব্যবধানটা বাড়াতে পারেনি জামাল। অন্যদিকে শেখ রাসেলও ম্যাচের একমাত্র গোলটি শোধ করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত জামালের কাছে হেরেই মাঠ ত্যাগ করে রাসেল।