“পৃথিবীতে বেচেঁ থাকতে চাই সেবার জন্য”


sujon প্রকাশিত: ১:২২ অপরাহ্ণ ৯ মার্চ , ২০২২
“পৃথিবীতে বেচেঁ থাকতে চাই সেবার জন্য”

লায়ন আবুল বাসার মিন্টু, এই নামটা সেবার প্রতিচ্ছবি। পৃথিবী যখন ঘুমায়, চাদেঁর আলোকিত আকাশ যখন বিনোদনে ব্যস্ত, তখনও সে মানুষটি রাত কিংবা দিন, সব ভূলে রাস্তা থেকে রাজ প্রাসাদে থাকেন সেবায় নিমগ্ন। ফুটপাতের বিষন্ন মুখ ফুলির গায়ের পোশাক, মুখের আহার যেমন তার সেবার বৃত্ত, তেমনিই আলিশান গুলশানের মানুষটির গভীর রাতের অসুস্থতায় হাসপাতালে নিয়ে সেবাদাতা, সেই একই মুর্তি মিন্টু। ব্যস্ত পৃথিবীর প্রায় প্রতিটি মানুষ যখন নিজ ঘর আর ঘুম নিয়ে ক্লান্ত, তখন তার এই সেবার কাফেলা এক অনন্য দৃষ্টান্ত। সেবাতেই শান্তি, সেবাতেই সুখ, আর স্বস্তি। এ হলো মিন্টুর মনছবি। তার মনছবির গল্প করেছেন ইতিহাস প্রতিদিনের তাসনিমের সাথে।

ইতিহাস প্রতিদিন: প্রায় পুরোটা জীবন সেবা করে কাটিয়ে দিলেন। আপনার ব্যাক্তি জীবন বলতে সেবায় বুঝি আমরা। সেবাতেই কি আপনার সব?

আবুল বাসার মিন্টু: আসলেই তাই। সময় এবং সেবা এ দুটি বিষয় জীবনের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে যুক্ত। মানব জীবন সংক্ষিপ্ত। এই সংক্ষিপ্ত জীবনে সেবার স্বাদ আস্বাদন না করলে আর থাকে কি জীবনে? আমার মানসিক ইচ্ছা প্রবল কিন্তু সার্মথ্য কম।

ইতিহাস প্রতিদিন: আপনি নিজে তো সেবা করেনই, আবার যে কেউ সেবা বা সহযোগিতা চেয়ে পাইনি এমন ঘটনা জানা নেই।

আবুল বাসার মিন্টু: মানুষের মন তো মহাবিশ্বের মত বিশাল। আমার ইচ্ছাটাও বিশাল। সে অনুসারে করতে পারি সামান্যই।

ইতিহাস প্রতিদিন: সেবায় কি জীবনের শেষ অবধি সারথি?

আবুল বাসার মিন্টু: পৃথিবীতে বেচেঁ থাকতে চাই সেবার জন্য। আপনাদেরকে পাশে নিয়ে, সাথে নিয়ে, সেবা করতে চাই।

ইতিহাস প্রতিদিন: আপনার দূর্নিবার ইচ্ছা এগিয়ে যাক মনেুষের কল্যাণে। এই প্রত্যাশা ইতিহাস প্রতিদিন পরিবারের।

আবুল বাসার মিন্টু ইতিহাস প্রতিদিন পরিবারের প্রতি আমার অকুন্ঠ ভালোবাসা। আমার সেবার এই নেশাকে এগিয়ে নিতে উৎসাহ দেওয়ার জন্য।