প্রেমের ফাঁদে দুই সন্তানের জননীকে ধর্ষন, কারাগারে ধর্ষক


sujon প্রকাশিত: ৭:৫১ অপরাহ্ণ ৩ মার্চ , ২০২২
প্রেমের ফাঁদে দুই সন্তানের জননীকে ধর্ষন, কারাগারে ধর্ষক

এম আর অভি, বরগুনা প্রতিনিধি : প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে দিয়ে ২ সন্তানের জননীকে ধর্ষনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বরগুনায় সিদ্দিকুর রহমান (৪৫) নামের একজনকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) দুপুরে বরগুনা চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্যেস্ট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ মাহবুব আলম তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

থানাসূত্রে জানা গেছে, বরগুনা সদর উপজেলার ৮নং সদর ইউনিয়নের পাজরাভাঙ্গা গ্রামের আনছার ফরাজীর ছেলে সিদ্দিকুর রহমান প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে দিয়ে ভিকটিমের সাথে দৈহিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করত। ভিকটিমের স্বামী ঘরে না থাকার সুযোগে (২ মার্চ) মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে দুই সন্তানের জননী ভিকটিমকে তার স্বামীর বাড়ির বসত ঘরে চৌকির ওপরে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষন করে।

এ সময় ভিকটিমের ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা ধর্ষককে গনপিটুনি দিয়ে ট্রিপল থ্রিতে (৩৩৩) ফোন দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে । পুলিশ তাকে আটক করে প্রথমে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পর দিন আদালতে হাজির করে। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়।

এ ঘটনায় ভিকটিম নিজে বাদী হয়ে সিদ্দিকুর রহমান কে আসামী করে ধর্ষনের অভিযোগ এনে বরগুনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ আসামী সিদ্দিকুর রহমান (৪৫)কে ৩ মার্চ বৃহস্পতিবার আদালতে হাজির করলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

বরগুনা থানার এস আই মিহির কান্তি প্রতিবেদকে মুঠোফোনে সিদ্দিকুর রহমানকে আটক করে আদালতে মাধ্যমে কারাগারে পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সিদিক্কুর রহমানকে স্থানীয় জনতা গনপিটুনি দিয়ে ট্রিপল থ্রিতে ফোন দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। পরে আজ বৃহস্পতিবার ভিকটিমের এজাহারের ভিত্তিতে তাকে আদালতে তোলা হলে বিজ্ঞ বিচারক তাকে কারাগারে পাঠায় ।