বিনিয়োগকারীদের পছন্দের শীর্ষে ড্রাগন সোয়েটার


sraboni প্রকাশিত: ৬:৪৮ অপরাহ্ণ ২৫ ফেব্রুয়ারি , ২০২২
বিনিয়োগকারীদের পছন্দের শীর্ষে ড্রাগন সোয়েটার

নিজস্ব প্রতিবেদক: গেলো সপ্তাহ বড় দরপতনের মধ্য দিয়ে পার করেছে দেশের শেয়ারবাজার। এই পতনের বাজারে সপ্তাহজুড়ে দাম বাড়ার ক্ষেত্রে দাপট দেখিয়েছে ড্রাগন সোয়েটার। গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের কাছে পছন্দের শীর্ষে ছিল কোম্পানিটির শেয়ার। ফলে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম বাড়ার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে এই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার।

গেলো সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে ২২ দশমিক ৮৪ শতাংশ। টাকার অঙ্কে বেড়েছে ৩ টাকা ৭০ পয়সা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ৯০ পয়সা, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ১৬ টাকা ২০ পয়সা।

শেয়ারের এমন দাম বাড়া কোম্পানিটি সর্বশেষ ২০২১ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরের জন্য প্রথমে ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ ঘোষণা করে। পরবর্তীতে তা পরিবর্তন করে ৫ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দেয় প্রতিষ্ঠানটি।এর আগে ২০২০ সালে ১৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার, ২০১৯ সালে ১০ শতাংশ, ২০১৮ সালে ২০ শতাংশ, ২০১৭ সালে ১৫ শতাংশ এবং ২০১৬ সালে ১৫ শতাংশ করে বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দেয় কোম্পানিটি।

২০১৬ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া এই কোম্পানিটির সর্বশেষ প্রকাশিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলমান হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (২০২১ সালের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত) শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয়েছে ৬৬ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ৬৮ পয়সা।

এদিকে শেয়ার দাম বাড়ায় বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন। ফলে সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৫৫ কোটি ১৬ লাখ ৬১ হাজার টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ৭৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা।

গেলো সপ্তাহে দাম বাড়ার শীর্ষ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ক্রাউন সিমেন্ট। এই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার দাম সপ্তাহজুড়ে বেড়েছে ২১ দশমিক ৩০ শতাংশ। এর পরের স্থানটিতে রয়েছে অ্যাপেক্স স্পিনিং। সপ্তাহজুড়ে এ কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে ১৬ দশমিক ৬০ শতাংশ।

এছাড়া দাম বাড়ার শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা এডিএন টেলিকমের ১১ দশমিক ৮৯ শতাংশ, প্যাসেফিক ডেনিমসের ১১ দশমিক ৭৬ শতাংশ, জাহিন টেক্সটাইলের ৯ দশমিক ৩৩ শতাংশ, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের ৯ দশমিক ২০ শতাংশ, জাহিন স্পিনিংয়ের ৮ দশমিক ৮৯ শতাংশ, সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলের ৮ দশমিক ৮৯ শতাংশ এবং ইমাম বাটনের ৭ দশমিক ৮৯ শতাংশ দাম বেড়েছে।