সচেতন থাকুন শিশুর ডায়াপার ব্যবহারে


sraboni প্রকাশিত: ৮:২১ পূর্বাহ্ণ ৪ অক্টোবর , ২০২২
সচেতন থাকুন শিশুর ডায়াপার ব্যবহারে

লাইফস্টাইল ডেস্ক: শিশুদের জন্য ডায়াপার ব্যবহারকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন বেশির ভাগ মা-বাবা। ডায়াপার ব্যবহারের বেশ কিছু সুবিধার জন্য মা-বাবারা এর প্রতি প্রতিনিয়ত আকৃষ্ট হচ্ছে।বাইরে বের হওয়ার সময় কিংবা রাতে একটু নিশ্চিন্তে বিশ্রামের কারণে অনেক অভিভাবকরাই সন্তানকে ডায়াপার পরিয়ে রাখেন। কিন্তু ডায়াপার ব্যবহারের সুবিধার পাশাপাশি এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও রয়েছে। দীর্ঘ সময় ডায়পার ব্যবহারের কারণে শিশুর ত্বক ও স্বাস্থ্যের ক্ষতি হতে পারে। ডায়াপার তৈরিতে সিন্থেটিক ফাইবার, রং এবং বিভিন্ন রাসায়নিক পণ্য ব্যবহার করা হয়। এসব ডায়াপার ব্যবহারে শিশুর সেনসিটিভ ত্বকের ক্ষতি হয় এবং অ্যালার্জিও হতে পারে। তাই নরম এবং স্কিন-ফ্রেন্ডলি উপকরণ দিয়ে তৈরি এমন ডায়াপার নির্বাচন করুণ।

শিশুর শরীরে ব়্যাশ

শিশু ভেজা নোংরা ডায়াপার দীর্ঘক্ষণ পরে থাকলে তাতে ব্যাকটেরিয়া বংশবৃদ্ধি করে ত্বকে ব়্যাশ, লালচে ভাব দেখা যায়। শিশুকে ডায়াপার পরানোর পর তা অবশ্যই সময়ের মধ্যে পরিবর্তন করতে হবে। বারবার চেক করতে হবে শিশুর ডায়পার নোংরা হয়েছে কি না, হলে অবশ্যই তা সঙ্গে সঙ্গে পরিবর্তন করতে হবে।সংক্রমণজনিত সমস্যা : দ্রুত পানি শোষণ করার জন্য ডায়াপারে কিছু উপাদান দেওয়া থাকে। আর এ উপাদান ডায়াপারের ভেতরে বাতাস প্রবেশে বাধা দিতে পারে, ফলে ডায়াপারের মধ্যে ব্যাকটেরিয়া এবং অন্যান্য জীবাণুর বংশবৃদ্ধি হতে পারে। যা শিশুর ইনফেকশন হওয়ার ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে।

সতর্কতা

ডায়াপার বেছে নেওয়ার সময় তার শোষণক্ষমতা, আরামদায়ক এবং লিকপ্রুফ কি না, তা দেখে নিন। নিম্নমানের ডায়াপার বাচ্চার জন্য মারাত্মক ক্ষতির কারণ হতে পারে।ডায়াপার পরিবর্তনের সময় শিশুকে খুব যত্ন করে পরিষ্কার করতে হবে। অতিরিক্ত সুগন্ধি বা অ্যালকোহলযুক্ত বেবি ওয়াইপস ব্যবহার না করাই ভালো, ত্বকের জন্য এগুলো খুবই ক্ষতিকর। ডায়াপার বদলানোর পর ভেজা কাপড়, তুলার তৈরি বল অথবা বেবি ওয়াইপস ব্যবহার করতে পারেন। শিশুর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে যত্নশীল হতে হবে।শিশুকে ডায়াপার পরালে তা খুব টাইট করে পরাবেন না। ঢিলেঢালা ডায়াপার পরালে শিশুরা আরাম পায়। শিশুর ডায়াপার বদলাবার পর ভালো করে হাত ধুয়ে নিতে হবে, তা না হলে জীবাণু ছড়াতে পারে।