সয়াবিন তেল: আদালত বললেন এখানে সবার স্বার্থ জড়িত


sujon প্রকাশিত: ২:২০ অপরাহ্ণ ৭ মার্চ , ২০২২
সয়াবিন তেল: আদালত বললেন এখানে সবার স্বার্থ জড়িত

বিশেষ প্রতিবেদক: সয়াবিন তেলের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে মনিটরিং সেল গঠন এবং নীতিমালা তৈরি করতে দায়ের করা রিট শুনানির জন্য আগামীকাল দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবারের (৮ মার্চ) মধ্যে রিট আবেদনটি সংশোধন করে নিয়ে আসতে বলেছেন আদালত।

সোমবার (৭ মার্চ) বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিট আবেদনটি শুনানির জন্য ওঠে। রিটকারী আইনজীবী সৈয়দ মহিদুল কবীরকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, রিট আবেদনটি নির্ভুল করে আগামীকাল নিয়ে আসুন, আমরা শুনবো। এখানে সবার স্বার্থ জড়িত।

আজ রিটকারী আইনজীবী সৈয়দ মহিদুল কবিরকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, রিট আবেদনটি নির্ভুল করে আগামীকাল নিয়ে আসুন, আমরা শুনবো। এখানে সবার স্বার্থ জড়িত। পরে এ বিষয়ে শুনানির জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার (৮ মার্চ) দিন ধার্য করা হয়।

রিটের বিষয়ে শুনানি করার জন্যে উপস্থাপন করা হলে সোমবার (৭ মার্চ) হাইকোর্টের বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চে এমন মন্তব্য করে আদেশ দেন। আদালতে আজ রিটকারীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী অ্যাডভোকেট সৈয়দ মহিদুল কবির।

এর আগে জনস্বার্থে রোববার (৬ মার্চ) দেশের বাজারে খোলা এবং বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম নিয়ন্ত্রণের নির্দেশনা চেয়ে জনস্বার্থে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। একই সঙ্গে সয়াবিনের দাম বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে সরকারের নিষ্ক্রিয়তাকে চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে রিটে। গত রোববার (৬ মার্চ) ৩ আইনজীবীর পক্ষে অ্যাডভোকেট সৈয়দ মহিদুল কবির হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট আবেদন করেন।

রিটে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি), টিসিবি’র চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট ৮ জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

আইনজীবী সৈয়দ মহিদুল কবির বলেন, সয়াবিনের দাম বৃদ্ধিতে সরকারের নিষ্ক্রিয়তার ঘটনাটি হাইকোর্টের নজরে আনা হয়েছিলো। এরপর আদালত যথাযথ আবেদন নিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দেন। তারই আলোকে আজ রিটটি করা হয়।

এর আগে ৩ মার্চ দেশের বাজারে খোলা এবং বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বাড়ার ঘটনাটি উচ্চ আদালতের নজরে আনা হয়। এরপর এ বিষয়ে শুনানির জন্য রোববার দিন ধার্য করেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে এ বিষয়ে যথাযথ একটি আবেদন করার পরামর্শ দেন হাইকোর্টের একই বেঞ্চ।

সৈয়দ মহিদুল কবির বলেন, অ্যাডভোকেট মনির হোসেন ও মোহাম্মদ উল্লাহসহ আমরা ৩ আইনজীবী সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানো বিষয়ে একটি জাতীয় ইংরেজি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন আদালতের নজরে আনি।

সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে ভোজ্যতেলের দাম বৃদ্ধিতে সীমাহীন কষ্টে পড়েন তারা। সবশেষ গত মাসে বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ৮ টাকা বাড়ায় সরকার। এতে করে লিটার প্রতি সয়াবিন তেলের দাম হয় ১৬৮ টাকা। তবে দেশের বাজারে এর থেকে বেশি দামেও এই তেল বিক্রি হতে দেখা গেছে। যে দাম এখনও বহাল রয়েছে।