হাবিপ্রবিতে জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত


sraboni প্রকাশিত: ৭:৫১ অপরাহ্ণ ২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২২
হাবিপ্রবিতে জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত

হাবিপ্রবি প্রতিনিধি: গুণগত পরিসংখ্যান উন্নত জীবনের সোপান ‘ এই স্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ( হাবিপ্রবি ) জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস -২০২২ উদযাপিত হয়েছে। পরিসংখ্যান দিবসকে কেন্দ্র করে রবিবার ( ২৭ ফেব্রুয়ারি ) সকাল ১০ টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে র‌্যালি বের করে হাবিপ্রবির পরিসংখ্যান বিভাগ। এসময় র‌্যালিটি হাবিপ্রবির ড. এম. এ. ওয়াজেদ ভবন থেকে শুরু করে বিভিন্ন চত্বর প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়াম-২ এর সামনে গিয়ে শেষ হয়।

পরিসংখ্যান দিবস উপলক্ষ্যে অনলাইন ও অফলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়াম-২ তে আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে পরিসংখ্যান বিভাগ।উক্ত অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন হাবিপ্রবির বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মোঃ মামুনুর রশীদ, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. মোঃ সাইফুর রহমান, পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রাজিব দে, সহকারী অধ্যাপক এ.এস. এম আবু সাঈদ, সহকারী অধ্যাপক মোছাঃ দিলারা পারভীন ও সহকারী অধ্যাপক মোঃ সবুজ আলী।

এছাড়া অনলাইনে আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বরেণ্য পরিসংখ্যানবিদ বল স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. রহমাতুল্লাহ ইমন এবং ফিজি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এবিএম শাওকত আলী। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন পরিসংখ্যান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. এরফান আলী খোন্দকার।

অনুষ্ঠানের শুভেচ্ছা বক্তব্যে হাবিপ্রবির বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মোঃ মামুনুর রশীদ তার বক্তব্যের শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুননেছা মুজিবসহ ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহীদ এবং ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে বলেন, ” বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র উন্নয়নশীল বাংলাদেশ গড়তে সাহায্য করছে গুণগত পরিসংখ্যান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পরিসংখ্যানের গুরুত্ব অনুধাবন করে ১৯৭৪ সালে পরিসংখ্যান ব্যুরো গঠন করেন । বর্তমান সময়ে পরিসংখ্যানের গুরুত্ব বেড়েই চলেছে। বাংলাদেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সঠিক পরিসংখ্যান কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে করবে বলে প্রত্যাশা করি “। এসময় তিনি জাতীয় পরিসংখ্যান-২০২২ আয়োজনের জন্য পরিসংখ্যান বিভাগের সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

এদিকে সভাপতির বক্তব্যে পরিসংখ্যান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. এরফান আলী খোন্দকার বলেন, ” এসডিজির ১৭ টি লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে ষোলটিতেই পরিসংখ্যানের মডেল ব্যবহার করা হয়েছে । দিন দিন পরিসংখ্যানের গুরুত্ব বেড়েই চলছে। বৃহৎ পরিসরে এবারেই প্রথম হাবিপ্রবিতে আমরা পরিসংখ্যান দিবস আয়োজন করেছি, যাতে করে শিক্ষার্থীদের মাঝে পরিসংখ্যানের গুরুত্ব আরো ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পরে । হাবিপ্রবি প্রশাসন সহ পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সহায়তার কারণে আমরা সুন্দরভাবে জাতীয় এ দিবসটি আয়োজন করতে পেরেছি। তাই অনুষ্ঠানটি স্বার্থক করতে যারা নিরলসভাবে কাজ করেছে আমি সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি “। অনুষ্ঠানটির সঞ্চলনা করেন পরিসংখ্যান বিভাগের ১৮ ব্যাচের শিক্ষার্থী ইসরাত জাহান জেমি ও ১৯ ব্যাচের শিক্ষার্থী মোঃ তুষার আলী।

উল্লেখ্য যে, অনলাইনে যুক্ত আলোচকবৃন্দ পরিসংখ্যানের তথ্যের বর্তমান ব্যবহার ও ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি ডাটা সাইন্স, মেসিং লার্নিয়ের বিভিন্ন দিক ও গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা করেন। পরে আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেন অনলাইনে যুক্ত আলোচকবৃন্দ ।